SHARE

১৪ই জুলাই ২০২০, ওয়েভ ইন্ডিয়া বাংলা, ওয়েব ডেস্ক :– ২০০ বছরের পুরনো হুইস্কি জনি ওয়াকার এবার কাগজের বোতলে পাওয়া যাবে। প্রস্তুতকারী সংস্থা ডিয়াজিও জানিয়েছে, যাতে পরের বছরের মধ্যে তা বাজারে আনা যায় তার জন্য ইতিমধ্যেই ট্রায়াল শুরু হয়েছে। প্ল্যাস্টিক দূষণ কমানোর জন্যই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

তবে জনি ওয়াকার-এর বেশিরভাগ বোতলই কাঁচের হয়। কিন্তু কাঁচের বোতল তৈরি করতে গেলেও প্রচুর পরিমাণে এনার্জি লাগে। পাশাপাশি কার্বণও নিঃসরণ হয় প্রচুর পরিমাণে। তাই এবার পরিবেশ বান্ধব কাগজের বোতল করতে তৈরি করতে চাইছে ডিয়াজিও। এর জন্য পুলপেক্স নামে পৃথক একটি সংস্থা করছে তাঁরা। যারা এই কাগজের বোতল উৎপাদন করবে। তারা জানায়, এই বছরের বসন্তেই পরীক্ষা সম্পন্ন করা হবে।

কাগজের বোতল হলেও তা পুনর্ব্যবহারের যোগ্য করে তোলা হবে। এই বোতল গ্রাহকরাও বিক্রি করতে পারবেন। ইতিমধ্যে কার্লসবার্গও কাগজের বোতলের বিয়ার বিক্রির পরিকল্পনা করছে। তবে, জানুয়ারিতে ড্রিঙ্কস জায়েন্ট কোকা-কোলা বলেছিল, তাদের উৎপন্ন বোতলগুলি সিঙ্গল-ইউজ প্ল্যাস্টিক নয়। তাছাড়া কোকা-কোলার বোতলের নানি আলাদা চাহিদা রয়েছে বাজারে। তাই তারা কাগজের বোতলের কথা এখনই ভাবছে না।

অনেক কাগজের প্যাকেজিংয়ে পাতলা প্ল্যাস্টিকের আস্তরণ থাকে। তবে ডিয়াজিও জানিয়েছে, তাঁদের তৈরি বোতলে ওই পরিমাণ প্ল্যাস্টিকও থাকবে না। বরং একধরনের স্প্রে ব্যবহার করা হবে, যা বোতলের ভেতরে থাকা পানীয়কে ধরে রাখতে সাহায্য করবে। শুধু জনি ওয়াকারই নয়, তাদের তৈরি স্মারনফ ভোদকাও বোতলের প্যাকেজিংয়েও এবার ৫ শতাংশ কম প্ল্যাস্টিক ব্যবহার করা হচ্ছে বলে জানানো হয়েছে।

SHARE

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here