Home EDUCATION & CAREER অচলাবস্থা কাটাতে হাইকোর্টে বিশ্বভারতী

অচলাবস্থা কাটাতে হাইকোর্টে বিশ্বভারতী

SHARE

২রা সেপ্টেম্বর ২০২১, ওয়েভ ইন্ডিয়া বাংলা , ওয়েব ডেস্ক :-বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের অচলাবস্থা কাটাতে আদালতের হস্তক্ষেপ চেয়ে এবার কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হল বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। চলতি সপ্তাহেই এই মামলার শুনানির সম্ভাবনা রয়েছে হাইকোর্টের ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি রাজেশ বিন্দালের ডিভিশন বেঞ্চে।

প্রসঙ্গত, গত ২৭ আগস্ট থেকে বিশ্বভারতীর উপাচার্যর বাসভবন ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন ছাত্রছাত্রীরা। দাবি, বরখাস্ত হওয়া ৩ পড়ুয়ার সাসপেনশন তুলে নিতে হবে। এই ঘটনায় এবার সরাসরি রাজ্য সরকার ও পুলিশকে দোষারোপ করল বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ। এই মর্মে ৩৮ পাতার একটি রিট পিটিশন দাখিল করা হয়েছে হাইকোর্টে। ওই পিটিশনে উল্লেখ করা হয়েছে, পুলিশের কাছে সাহায্য পাওয়া যায়নি, এমনকী পুলিশ সুপারকে ফোন করা হলেও কোনও সাহায্য পাওয়া যায়নি। শুধু তাই নয় প্রশাসনিক ভাবে কোনরকম সাহায্য পাওয়া যায়নি। তাই আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

এছাড়াও মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে, বিশ্বভারতীর সেন্ট্রাল অফিসের সামনের গেটের তালা ঝুলিয়ে দিয়েছেন ছাত্র-ছাত্রীরা। অভিযোগ তোলা হয়েছে, বিশ্বভারতীর উপাচার্যের বাসভবনের গেট টপকে ঢোকার চেষ্টা করেন ছাত্র-ছাত্রীরা। বিশ্বভারতীর সামনে বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত আইনি ব্যবস্থা নেয়নি রাজ্য সরকার। এই আবেদন জানিয়ে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ।

উল্লেখ্য, বিশ্বভারতীতে ক্রমশ জোরদার হচ্ছে ছাত্র আন্দোলন। বৃহস্পতিবার ওই আন্দোলনে যোগ দিচ্ছে তণমূল ছাত্র পরিষদ। উপাচার্য বিদ্যুত্ চক্রবর্তীর দাবি, তাঁর বাসভবনে খাবার সরবারহ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ওই দাবিকে উড়িয়ে দিয়ে উপাচার্যের বাসভবনে তিন বেলা খাবার পৌঁছে দেওয়ার কথা ঘোষণা করলেন বিক্ষোভকারী পড়ুয়ারা। বুধবার সকালে উপাচার্যের বাসভবন পূর্বিতা-র গেটের নীচ দিয়ে ডিম, কলা, পাঁউরুটি পৌঁছে গিয়েছেন ছাত্ররা। তাঁদের দাবি, পড়ুয়াদের আন্দোলনকে ছোট করার জন্য মিথ্যে প্রচার করছেন উপাচার্য।

 

 

SHARE

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here