Home Politics মেয়াদ বৃদ্ধির চারদিনের মাথায় মুখ্যসচিবকে কেন্দ্রের তলব কেন , প্রশ্ন চন্দ্রিমার

মেয়াদ বৃদ্ধির চারদিনের মাথায় মুখ্যসচিবকে কেন্দ্রের তলব কেন , প্রশ্ন চন্দ্রিমার

SHARE

৩১শে মে ২০২১, ওয়েভ ইন্ডিয়া বাংলা , ওয়েব ডেস্ক :-রাজ্যের মুখ্যসচিবের মেয়াদ বদলির সিদ্ধান্ত নেওয়ার চারদিনের মধ্যে তাঁকে দিল্লিতে ডেকে পাঠাতে হল, কিন্তু কেন। সোমবার নবান্নে এমনই প্রশ্ন তুললেন রাজ্যের মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। বিপর্যয়ের বাংলা থেকে আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের মত একজন যোগ্য আমলাকে কেন্দ্রের তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্তে প্রতিহিংসার গন্ধ পাচ্ছেন তিনিও। একইসঙ্গে কেন্দ্রীয় সরকারের এই নির্দেশ আদৌ আইনসম্মত কি না তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন চন্দ্রিমা।

হিসাব মত ৩১ মে সোমবার মুখ্যসচিব হিসাবে আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাজের শেষ দিন। কিন্তু একদিকে করোনার বাড়বাড়ন্ত, অন্যদিকে ইয়াসের তাণ্ডবে তছনছ বাংলাকে সামাল দিতে আলাপনের মত একজন আমলাকে পাশে চেয়ে দিল্লিতে আবেদন করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গত ২৪ মে দিল্লি সম্মতি দেয়, আগামী তিন মাস এ রাজ্যের মুখ্যসচিব হিসাবে আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ই থাকবেন। পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে তাঁর মেয়াদ বাড়ানো হয়। চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য এদিন প্রশ্ন তোলেন, এটাই আমাদের প্রশ্ন কী এমন হল যে ২৪ তারিখ থেকে চার দিনের মাথায় মুখ্যসচিবকে বলা হল তাঁকে ৩১ মে দিল্লির কর্মিবর্গ ও প্রশিক্ষণ মন্ত্রকে যোগ দিতে হবে? যা বিপর্যয় পশ্চিমবাংলায় এই মুহূর্তে, সেখানে এটা করা আইনসঙ্গত কি না সেটাই আমি জানতে চাই। মমতা মন্ত্রিসভার সদস্যা বলেন, বাংলায় যেটা হচ্ছে তা বুঝিয়ে দিচ্ছে কেন্দ্র বাংলার নির্বাচিত সরকারের সঙ্গে ঠিক কী আচরণ করতে চাইছে।

এগুলো সকলেরই নজরে পড়ছে। একইসঙ্গে চন্দ্রিমা বলেন, ইয়াস পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী-মুখ্যমন্ত্রী বৈঠকের জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কলাইকুন্ডায় গেলেও তাঁকে ২০ মিনিট বসিয়ে রাখা হয়েছিল। আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে সঙ্গে নিয়ে দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষা করার পর প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ হয় মুখ্যমন্ত্রীর। এরপর তাঁরা অনুমতি নিয়েই বেরিয়ে আসেন। চন্দ্রিমার দাবি, দেশের আইনমন্ত্রী একটি সাক্ষাৎকারে বলেছেন, মুখ্যসচিব ওয়াক আউট করেছেন। ওয়াক আউট করার প্রশ্ন কেন আসছে সেটাই বোঝা গেল না। কোন পরিপ্রেক্ষিতে আইন মন্ত্রী বললেন মুখ্যসচিব ওয়াকআউট করেছে? আর তার জন্যই কি প্রতিহিংসামূলক আচরণ করা হচ্ছে মুখ্যসচিবের সঙ্গে?

 

SHARE

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here